Programing By Sidratum Muntaha

𝐏𝐫𝐨𝐠𝐫𝐚𝐦𝐦𝐢𝐧𝐠

বর্তমান সময়ে সবচেয়ে ডিম্যান্ডডেবল কিছু বিষয়ের মধ্যে প্রোগ্রামিং একটি। বড় বড় সফটওয়্যার, নামী-দামী সব অ্যাপস তৈরি করার জন্য যে জিনিসটা সবার আগে দরকার, তা হলো প্রোগ্রামিং।কম্পিউটারকে ইন্সট্রাকশন দেওয়ার প্রক্রিয়া হচ্ছে
প্রোগ্রামিং।

আমরা কম্পিউটার অন করে মিউজিক শুনি, মিউজিক প্লেয়ার একটা প্রোগ্রাম। যার মধ্যে রয়েছে অনেক গুলো ইন্সট্রাকশন। আমরা গেম খেলি। এক একটা গেম এক একটা প্রোগ্রাম। রয়েছে অনেক হাজার হাজার ইন্সট্রাকশন। আর এই ইন্সট্রাকশন গুলো লেখার কাজই হচ্ছে প্রোগ্রামিং।ইন্সট্রাকশন গুলো কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে লিখতে হয়। যে নিয়ম গুলো মেনে প্রোগ্রাম লিখতে হয়, তা হচ্ছে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ।

অনেক গুলো কম্পিউটার প্রোগ্রামিং রয়েছে। কয়েক হাজার। কিন্তু সব গুলোর ব্যাসিক নিয়ম এক। একটা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এ প্রোগ্রামিং করতে জানলে বাকি যে কোন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজে প্রোগ্রাম লেখা যায়। কয়কটি জনপ্রিয় ল্যাঙ্গুয়েজ হচ্ছে 𝐂, 𝐂++, 𝐉𝐚𝐯𝐚, 𝐏𝐡𝐲𝐭𝐡𝐨𝐧, 𝐂# ইত্যাদি।

কেন আপনি প্রোগ্রামিং শিখবেন? তাহলে কারণগুলো একনজরে দেখে নিন একবার!

•সফটওয়্যারের ধারণাগুলো বোঝা এবং সফটওয়্যার আর্কিটেকচার সম্পর্কে ধারণা পাওয়ার জন্য;
•ওয়েবসাইটের সমস্যার সমাধান করার ক্ষেত্রে;
•একজন প্রোগ্রামার সাথে কথা বলতে ;
•নিজের চিন্তাশক্তি এবং সমস্যা সমাধানের দক্ষতা বাড়াতে—সহ অনেক অনেক ক্ষেত্রে প্রোগ্রামিং আপনাকে সাহায্য করবে।
তাহলে চলুন জেনে নেই,জনপ্রিয় কয়েকটি প্রোগ্রামিং ল্যঙ্গুয়েজ সম্পর্কে!

𝐂:-

৭০-এর দশকে কাজ করার সময় 𝐂 তৈরি করেন ডেনিস রিচি ও বেল ল্যাবে। । ভাষাটি তৈরির প্রথম উদ্দেশ্য ছিল ইউনিক্স অপারেটিং সিস্টেমের কোড লেখা। অচিরেই এটি একটি বহুল ব্যবহৃত ভাষায় পরিণত হয়। অনেক প্রোগ্রামিং ভাষার বেসিক হিসেবে এটি কাজ করে। এটির সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক হচ্ছে এর পোর্ট্যাবিলিটি। এ ভাষা দিয়ে রচিত প্রোগ্রাম যে কোনও অপারেটিং সিস্টেমের কম্পিউটারে ব্যাবহার করা যায়।

𝐉𝐚𝐯𝐚𝐒𝐜𝐫𝐢𝐩𝐭:-

JavaScript কে সংক্ষেপে JS দিয়ে প্রকাশ করা হয়। এটি একটি উচ্চ-স্তরের, গতিশীল ও প্রোটোটাইপ ভিত্তিক প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ।
JavaScript একটি প্রয়োজনীয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ। যা সব ক্ষেত্রে প্রয়োজন হয়। JavaScript এর সবচেয়ে মজার বিষয় টি হচ্ছে এটি ক্লায়েন্ট সার্ভার উভয় দিকে কাজ করতে পারে, এবং এই ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে অফলাইন এ অ্যাপ্লিকেশান তৈরি করা সম্ভব।অবজেক্ট-ভিত্তিক (প্রোটোটাইপ-ভিত্তিক),অপরিহার্য,কার্যকরী হওয়ায় মানুষ এই ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যাবহার করেন।

𝐏𝐲𝐭𝐡𝐨𝐧:-

Python হচ্ছে মূলত হাই লেভেল বা স্ট্রাকচার্ড প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ।
Python একটি জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ যা শেখা ও যায় বন্ধুত্বপুর্ন ভাবে। এই ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে খুব দ্রুত প্রোগ্রাম তৈরি করা যায় এর ফলে কাজের ক্ষেত্রে খুব দ্রুত কাজ সম্পন্ন করা যায়। এটি একটি সাধারণ উচ্চ-স্তরের প্রোগ্রামিং ভাষা যা সাধারণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত প্রোগ্রামিংয়ের জন্য ব্যাবহার করা হয়। বর্তমান বাজারে ও চাকরি ক্ষেত্রে এই প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ চাহিদা অন্যতম। এটি ল্যাঙ্গুয়েজ হিসেবে প্রয়োজনীয় ও কার্যকরি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ।

𝐂#

সি সার্ফ (C#) একটি বহু মাত্রিক প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ যা শক্তিশালী কার্যকরি অবজেক্ট ভিত্তিক ও কম্পোনেন্ট প্রোগ্রাম।এটি মাইক্রোসফটের জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ গুলোর একটি প্ল্যাটফর্ম। এছাড়া ও এটি দিয়ে লিনাক্স ,অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস সিস্টেমের জন্য ও খুব সহজে সফটওয়্যার ডেভেলপ করা যায়। এটি মাইক্রোসফট কর্পোরেশন কর্তৃক পরিকল্পিত ও বাস্তবায়িত হয়।

𝐆𝐎:-

𝐆𝐎 গুগল এর তৈরি করা একটি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ।এটি একটি ওপেন সোর্স ল্যাঙ্গুয়েজ, যার সাহায্যে বা ব্যাবহার করে খুব সহজেই দক্ষতার সাথে নির্ভরযোগ্য সফটওয়্যার তৈরি করা সম্ভব। দ্রুত প্রোগ্রাম কম্পাইল করা ও দ্রুত ফলাফল এর জন্য তারা এটি তৈরি করেছিল, এবং যাতে খুব সহজে এটির মাধ্যমে প্রোগ্রাম লেখা যায়। GO তে ডিবাগিং টেস্টিং ছাড়া ও আরো অনেক ধরনের টুলস রয়েছে,
যেমনঃ go build, go test, go fmt, go get, go run ইত্যাদি।

লেখাটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ আর বানান ভুলগুলো ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।

Name: Sidratum Muntaha
Milestone college.

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top