Benefits Of Being Creative by Abdul Muttali Nabil

“সৃজনশীলতা”/“Creativity”,বর্তমান সময়ে শোনা সবচেয়ে সাধারণ শব্দগুলোর একটি।এই সৃজনশীলতার উপকারিতা জানার আগে আমাদের আগে জানতে হবে যে সৃজনশীলতা বলতে কি বোঝায়।

★সৃজনশীলতা /Creativity-

নতুন কিছু নিয়ে চিন্তা করার ক্ষমতাকে সৃজনশীলতার সংজ্ঞা হিসেবে ধরা যায়।এবং সৃজনশীল হওয়াকে ব্যাখ্যা করা যায় এভাবে- নতুন চিন্তা/বুদ্ধি নিয়ে এগিয়ে আসার সক্ষমতা,নতুন কিছু নিয়ে কাজ করা।
Thinking outside the box.
তো এটি ছিলো সৃজনশীলতা এবং সৃজনশীল হওয়া (being creative) বলতে কি বোঝায়।

★সৃজনশীল কেনো হবো?এর উপকারিতা?

অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগতে পারে এমনকি জেগেও থাকে যে সৃজনশীল হয়ে কি লাভ?এর উপকারিতাই বা কি?
এর সহজ উত্তর হচ্ছে, তুমি যদি সৃজনশীল চিন্তা ভাবনা করো তাহলে তোমার মস্তিষ্কের অনুশীলন হয় এবং তোমার চিন্তা করার ক্ষমতা প্রসারিত হয়।তাছাড়া সৃজনশীলতা তোমাকে আরো সামাজিক হতে সহায়তা করে,তোমার কাজের চাপ/যেকোনো প্রকারের দুশ্চিন্তা দূর করতে সাহায্য করে।কারণ তুমি যখন creative thinking/creative কিছু করছো তোমার মস্তিষ্ক সেই দুশ্চিন্তা থেকে divert হয়ে যায়।এসব ছাড়াও সৃজনশীল হওয়া /সৃজনশীলতা তোমাকে তোমার প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা এবং সহ-পাঠক্রম সংক্রান্ত কাজেও (Co-curricular activities) সফলতা এনে দিবে।
সৃজনশীলতা শুধুমাত্র শিল্প সম্পর্কিত না।এটা যে কোনো বিষয়ে হতে পারে।আমাদের উচিত সৃজনশীলতাকে আমাদের শিক্ষার কেন্দ্রে রাখা এবং শিশুদেরকে ছোটো থেকেই সৃজনশীলতা অনুশীলন করানো,তাদের নানা সৃজনশীল কাজ যেমন- ছবি আঁকতে উদ্বুদ্ধ করা। এক্ষেত্রে বাবা-মা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।
সৃজনশীলতা খুবই প্রয়োজনীয় হয়ে উঠেছে কারণ বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে এটা বলা যায় যে ভবিষ্যতে সাফল্য শুধুমাত্র আমরা কতটুকু জানি এটার উপরেই নির্ভর করবে না বরং আমাদের চিন্তা করার ক্ষমতা এবং সৃজনশীলভাবে কাজ করার উপরেও নির্ভর করবে।
বর্তমান তরুণ প্রজন্মের উচিত সৃজনশীলতার চর্চা করা,সৃজনশীল চিন্তা ও কাজ করা, একটি বড় লক্ষ্য অনুসরণ করা,সেই লক্ষ্য পূরণে যা করা দরকার সবকিছু করা ও ঝুঁকি নিতে শেখা।

Name:- Abdul Muttali Nabil.
Institute:-Jamalpur Zilla School,Jamalpur.

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top