প্যারাডক্স

প্রথমে বলে নেই প্যারাডক্স কি?

প্যারাডক্স হচ্ছে এক ধরণের বিভ্রান্তি। যুক্তির সঙ্গে যুক্তির দ্বন্দ্ব।  পরস্পরবিরোধী বক্তব্য বা কাজ।  তবে দুই পক্ষেরই যুক্তি থাকতে হবে।  তবে সেটাই প্যারাডক্স।

১) গ্রিক দার্শনিক সক্রেটিসের একটি বিখ্যাত উক্তি হচ্ছে,” আমি জানি যে আমি কিছুই জানি না। ” কিছুই যদি না জানা থাকে তাহলে সক্রেটিস কিভাবে জানলেন যে তিনি কিছুই জানেন না? আবার তিনি জানেন যে তিনি কিছুই জানেন না।

২) পরপর দুইটি লাইন- পরের লাইনটি মিথ্যা, আগের লাইনটি সত্য নয়।  এটা হচ্ছে ডাবল লায়ার প্যারাডক্স। প্রথমে লাইনটিকে যদি সত্য ধরি, তাহলে পরের লাইনটা পড়লে আবার প্রথম লাইনটা মিথ্যা হয়ে যায়।

৩) একজন ধনী ব্যাক্তি, যার কাছে তার চাহিদা মেটানোর জন্য সব কিছু রয়েছে কিন্তু তবুও সে অসুখী ও অসন্তুষ্ট। যদি সে ধনী হয়, সে অসুখী হবে কেন?কেননা ধনী ব্যাক্তিটি সুখী হওয়ার জন্য ও তার চাহিদা মিটানোর সব কিছুই তার কাছে রয়েছে। আর যদি সে সে অসুখী হয় তার মানে ব্যাক্তিটি ধনী নয় , যার কারণে তিনি তার চাহিদা মিটাতে পারছে না এজন্য অসুখী ও অসন্তুষ্ট। কিন্তু প্রথমেই বলা আছে, তার তার চাহিদা মেটানোর জন্য সব কিছুই তার রয়েছে। তাহলে সে অসুখী কেন?

৪) কেউ যদি তোমার কাছে এসে বলে,” আমি একজন মিথ্যাবাদী ” তবে কি তুমি তার কথা বিশ্বাস করবে? যদি বিশ্বাস না করো তাহলে সে মিথ্যেবাদী নয়, সত্যবাদী। কিন্তু যদি সে সত্যবাদী হয়, তবে সে যে কথাটি বললো সেটা মিথ্যা! কিন্তু একজন সত্যবাদী কি কখনো মিথ্যা বলতে পারে?

৫) এক শহরে এক অদ্ভুত আইন আছে।  সেখানে বাইরের কেউ  এলে নগর রক্ষী জানতে চাই সে কেন এসেছে। মিথ্যা জবাব দিলেই তাকে ফাঁসি দেয়া হয়।  একবার এক আগন্তুক শহরে এলো।  যথারীতি আসার কারণ নগর রক্ষী জানতে চেলে আগন্তুক জবাব দেন তিনি ফাঁসিতে ঝুলতে এসেছেন। এখন মহাসমস্যায় পড়লেন নাগর রক্ষী। যদি লোকটিকে ফাঁসি দেয়া হয়, তাহলে তার কথা সত্যি হয়ে গেলো। কিন্তু সত্যি কথা বললে তো কাওকে ফাঁসিতে ঝোলানো যাই না। আবার যদি ফাঁসিতে ঝোলানো না হয়, তাহলে নগরের নিয়ম ভঙ্গ হয় আর লোকটির জবাবও মিথ্যে হয়ে যাই।

** প্রতিনিয়ত এরকম আমরা বহু প্যারাডক্সের মুখোমুখি হচ্ছি। কিভাবে? উপরের প্যারাডক্সগুলো পড়ে হয়তো বুঝে গেছেন?

2 thoughts on “প্যারাডক্স”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top