পড়তে ভালো লাগে না, পড়তে বসলে ঘুম আসে, কি করব?

আস সালামু’লাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ,
আমি আলফাজ।

আমাদের প্রায় সবারই একটা কমন সমস্যা থাকে সেটা হচ্ছে আমরা একদিন খুব ভালো করে লেখাপড়া করতে পারলেও পরেরদিন আর লেখাপড়া করতে ইচ্ছে করে না। অনেক সময় বই সামনে নিয়ে পড়তে বসলে খুব ঘুম আসে।

আজ আমি আপনাদের কে এই সমস্যাটির সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করব।

**প্রথমত আপনাকে একটা সাপ্তাহিক পরিকল্পনা করে নিতে হবে যে, আপনি এই সপ্তাহে আপনি কোন কোন বিষয়ের কতটুকু পড়া কমপ্লিট করতে চান।
** আপনার অবশ্যই একটা লক্ষ্য থাকতে হবে। তারপর সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী আপনি দৈনিক একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ অধ্যায়ন করতে শুরু করে দিন।
**প্রতিদিন আপনার পড়াশোনা কতটুকু হলো তার একটা Progress graph তৈরি করুন নিজেই।
**একদিন যদি একটা বিষয়ের দুটি অধ্যায় পড়েন তবে পরের দিন দুইটা বিষয়ের দুটি অধ্যায় পড়ার টার্গেট রাখবেন।
** এভাবে নিজের লেখাপড়ার পরিমাণ বাড়াতে থাকুন তাহলে দেখবেন ২১ দিন পর দৈনিক ৬-৭ঘন্টা করে লেখাপড়ার অভ্যাস আপনার হয়ে যাবে। কারণ, নির্দিষ্ট কোনো কাজ মানুষ যখন একাধারে ২১ দিন ধরে করতে থাকে তাখন মানুষের মস্তিষ্কে ঐ কাজটির জন্য একটা রুটিন তৈরি হয়ে যায়।বলতে পারেন Brain autopilot mode on.
!!তবে একটা জিনিস ও সত্য যে, কোনোprivate tutor, coaching কিংবা guargian না থাকলে অনেকের কাছেই এই নিয়মটা মেনে চলা সম্ভব হয়ে উঠে না!!
সেক্ষেত্রে আপনি নিজেকে কিছু Prize অথবা punishment দিতে পারেন। যেমন:- যদি আপনি নিজেকে বলতে পারেন,”আগামী সপ্তাহে যদি ৯০% পড়া কমপ্লিট করতে না পারি তাহলে আমি ফেসবুক চালানো বন্ধ রাখবো কিংবা কোনো একটি শৌখিন বন্ধ কাজ রাখবো।আর যদি পারি তাহলে করব।”

এভাবে আপনি আপনাকে নিয়ন্ত্রণ ও শাসন করতে পারেন।নিজেকে Punishment বা Prize দিতে পারেন।

এবার আসি পড়াশোনা করতে বসলে ঘুম আসার বিষয়টি নিয়ে।

পড়তে বসলে ঘুম যদি আসে তাহলে কিছু কাজ করতে পারেন।

১। হাতের কাছে একটা ধাতব পদার্থ (স্টিলের বাটি,পেপার ওয়েট )রাখতে পারেন যাতে করে ঘুম ভাব আসলেই সেটি মেঝেতে ফেলে দিতে পারেন এবং এতে আপনার ঘুম কেটে যায়।
২। ঘুম ভাব আসলে একটা চুইংগাম চাবাঁতে পারেন। চুইংগামে থাকে গ্লুকোজ যা ঘুম ভাব কাটিয়ে উঠতে সহায়তা করে।
৩। পড়ার স্থান পরিবর্তন করতে পারেন।যেমন: টেবিলের একপাশ থেকে অন্য পাশে গিয়ে বসে পড়তে পারেন।
৪।২ঘন্টা পরপর ৫-৭মিনিট করে হাঁটতে পারেন।
৫। নিজের জীবনের ব্যর্থতাগুলো লিখে দেওয়ালে টাঙিয়ে রাখতে পারেন।ব্যর্থতা বলতে কবে অঙ্কে কম পেয়েছেন, বাংলা বা অন্য কোনো বিষয়ে Mark short পড়েছে, এগুলো। যখন ঘুম আসবে তখন এগুলো জোরে জোরে পড়বেন, এতে ঘুম অনেকটা নাই হয়ে যায়।

আশা করি সবার উপকারে আসবে। শিখার মধ্য কোনো ভুলত্রুটি থাকলে মাফ করবেন।

ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top