চকলেট

ছোট বড় সবারই একটি পছন্দের খাবারের নাম চকলেট। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় মিষ্টি জাতীয় খাবার। বিশ্ব কোকোয়া ফাউন্ডেশন এর জড়িপ অনুযায়ী প্রতি বছর পৃথিবীজুড়ে প্রায় ৩ মিলিয়ন টন কোকোয়া বীজ থেকে চকলেট তৈরী হয়।চকলেট শুধু খেতেই মজা না,এটি আমাদের হৃৎপিণ্ড ও মস্তিষ্কের জন্য ও খুব উপকারী।

থিওব্রোমা কোকোয়ার ফল থেকেই মূলত চকলেট তৈরী করা হয়।গ্রীক ভাষায় এই থিওব্রোমা কোকোয়ার অর্থ হলো ‘ইশ্বর এর খাদ্য’

কোকোয়া বৃক্ষগুলোতে বাংলাদেশী ফল পেপে এর সমান আকারের ফল হয় এবং এই ফলগুলোর ভিতরে প্রায় ৫০ টি বীজ থাকে যা ফলটির সাদা খোশার ভিতর আবৃত থাকে।

চকলেট এর প্রায় ৪০০০ বছরের ইতিহাস শুরু হয় যখন প্রাচীন মিসোমেরিকায়(বর্তমানে মেক্সিকো) প্রথম কোকোয়া গাছ পাওয়া যায়।’দ্যা ওলমেক’,ল্যাটিন আমেরিকার প্রাচীনতম মানবসভ্যতা গুলোর একটি প্রথম কোকোয়া থেকে চকলেট তৈরী করে।তারা তাদের বিভিন্ন উৎসবে চকলেট পান করতো এবং ঔষধ হিসেবে ও ব্যবহার করতো।

প্রথম তরল চকলেট থেকে কঠিন চকলেট (চকলেট বার) তৈরীর প্রক্রিয়া আবিষ্কার করেন জোসেফ ফ্রাই।তিনি ১৮৪৭ সালে আবিষ্কার করেন যে তিনি ডাচ্ কোকোয়ায় গলিত কোকোয়া মাখন মিশিয়ে কঠিন চকলেট তৈরী করা যায়।

চকলেটকে প্রধানত আমরা ব্রাউন চকলেট আর মিল্ক চকলেট হিসেবে পাই। তবে স্বাস্থ্যের পক্ষে ব্রাউন চকলেট সবচেয়ে ভাল। ভাল মানের ব্রাউন চকলেটে থাকে ভিটামিন ই(vitamin E), ভিটামিন বি 12( vitamin B 12), মিনারেল( minerals), পটাসিয়াম (potassium), আরও অনেক কিছু। কোকো বিচিতে এন্টিঅক্সিডেন্ট (antioxidants) থাকে যেটা আমাদের জন্য উপকারী। এটা দুই ধরণের হয়, ফ্লেবোনয়েড(Flavonoids) এবং পলিফেনল(polyphenol)। ব্রাউন চকলেট এর কিছু উপকারিতা :

1. কোকোয়া বিচির মধ্যে ভাল পরিমাণে ফ্লেবোনয়েড থাকে যেটা আমাদের রক্তসঞ্চালন ভাল করে, রক্তচাপ কমায় এবং হার্ট ভাল রাখতে সাহায্য করে।

2. এটা ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা কম করে এবং রক্ত জমাট (blood clotting) বাঁধা আটকায়।

3. মনোযোগ ও স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে।

4. ফ্লেবোনয়েড ও তার সাথে ভিটামিন সি (vitamin C ) সর্দি কাশি সারাতে পারে।

5. পলিফেনল(polyphenol) কোলেস্টেরল (cholesterol) ঠিক রাখতে সাহায্য করে। শরীরে গুড কোলেস্টেরল বাড়ায় এবং ব্যাড কোলেস্টেরল কমায়।

6. চকলেটে কিছুটা ক্যাফেন(caffeine) থাকে যেটা মানসিক চাপ কমায়। তবে চকলেটে খুব বেশি ক্যাফেন না থাকায় তা খুব সহজে ঘুমের অসুবিধা ঘটায় না।

7. চকোলেট মস্তিষ্ক ও রেটিনায় (retina) রক্তসঞ্চালন বাড়িয়ে দৃষ্টি শক্তি ভাল রাখে।

8. ফ্লেবোনয়েড আমাদের ত্বককে সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি (ultraviolet ray) থেকে বাঁচায়।

অপরদিকে, আরও একরকম চকলেট হল মিল্ক চকলেট (milk chocolate), যেটাতে চর্বির পরিমাণ বেশি থাকে এবং সেখানে থাকা প্রোটিন এন্টিঅক্সিডেন্টের উপকারিতা কমিয়ে দিতে পারে। তাই মিল্ক চকলেট থেকে ব্রাউন চকোলেট খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে বেশি ভাল।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top