ডিমেনশিয়া

আমাদের মস্তিষ্ক আমরা যা চিন্তা, অনুভব, বলি ও করি তার প্রায় সবকিছুই নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। এটি আমাদের স্মৃতিগুলোও সংরক্ষণ করে থাকে।

কিছু কিছু রোগ আছে যা আমাদের মস্তিষ্ককে ঠিকমত কাজ করা থেকে বিরত রাখে। যখন কারো এরকম রোগ হয়ে থাকে, তাদের কোন কিছু মনে রাখা, চিন্তা করা ও সঠিক কথা বলা নিয়ে সমস্যা দেখা দেয়। তারা এমন কিছু বলতে বা করতে পারে যা অন্যদের কাছে অদ্ভূত মনে হতে পারে, এবং তাদের জন্য দৈনন্দিন কাজ করা কষ্টকর হয়ে উঠতে পারে। পূর্বে তারা যেমন ছিল তেমন তারা নাও থাকতে পারে।

এসব বিভিন্ন সমস্যা বর্ণনা করতে চিকিৎসকেরা ডিমেনশিয়া শব্দটি ব্যবহার করে থাকে।

ডিমেনশিয়া আছে এমন অধিকাংশেরই আলঝেইমারস ডিজিজ বা
ভ্যাসকিউলারডিমেনশিয়া থাকে, তবে এর অন্যান্য ধরনও রয়েছে।

ডিমেনশিয়ার উপসর্গগুলি সাধারণত গুপ্ত ভাবে শুরু হয় এবং ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পেতে লক্ষ্য করা যায়।

সাধারণভাবে যুক্ত লক্ষণ ও উপসর্গগুলির মধ্যে রয়েছে:

শেখার ক্ষমতা কমে যাওয়া।

স্মৃতিশক্তি হ্রাস পাওয়া।

ব্যক্তিত্ব এবং মেজাজ পরিবর্তন।

চিন্তা শক্তি কমে যাওয়া।

​প্রাথমিক পর্যায়ের উপসর্গগুলি: বিষন্নতা এবং উদাসীনতা।

পরবর্তী পর্যায়ের উপসর্গগুলি: অধীরতা, রাগের প্রবণতা, বিভ্রম এবং ভুল বকা।

অন্তিম পর্যায়ের উপসর্গগুলি: অসংযম, চলাফেরায় অসুবিধা, খাবার গিলতে সমস্যা এবং পেশিতে খিঁচুনি।

স্নায়ু কোষগুলির ব্যাপক ক্ষতি, ডিমেনশিয়ার উপসর্গগুলি সৃষ্টি করে।

সবচেয়ে সাধারণ কারণ হল অ্যালঝাইমারের রোগ যা স্বল্পমেয়াদী স্মৃতির ঘাটতির সাথে যুক্ত।

ডিমেনশিয়ার অন্যান্য সাধারণ কারণগুলি হল:

ভাস্কুলার (সংবহনতান্ত্রিক) ডিমেনশিয়া: এটি মস্তিষ্কে সরবরাহকারী রক্তবাহী কোষগুলির ক্ষতির ফলে ঘটে।

লেওই বডি ডিমেনশিয়া: লেওই বডিগুলি অস্বাভাবিক প্রোটিনের বোঝাই হয় যা মানুষের বৌদ্ধিক কার্যকারিতায় প্রভাব ফেলে।

ফ্রন্টোটেম্পোরাল ডিমেনশিয়া: মস্তিষ্কের এলাকার স্নায়ু কোষগুলির অবনতি যা ব্যক্তিত্ব, ভাষা এবং আচরণকে নিয়ন্ত্রণ করে।

মিশ্র ডিমেনশিয়া: গবেষণায় দেখা গেছে 80 বছর এবং তার বেশি বয়সী মানুষের উপরে উল্লিখিত ডিমেনশিয়ার মিশ্র প্রভাব রয়েছে।

অন্যান্য বিরল কারণগুলি: হান্টিংটনের রোগ, পারকিনসনের রোগ, আঘাতমূলক মস্তিষ্কের ক্ষত, বিপাকীয় এবং এন্ডোক্রাইন রোগ, ওষুধগুলি থেকে বিপরীত প্রতিক্রিয়া, বিষ এবং মস্তিষ্কে টিউমার।

ডিমেনশিয়ার নির্ণয়ের জন্য রোগীর মেডিকেল ইতিহাস এবং শারীরিক পরীক্ষার প্রয়োজন।

পরামর্শের সময় বৌদ্ধিক কার্যকারিতার মূল্যায়ন করা হয়, কিন্তু অতিরিক্ত পরীক্ষার প্রয়োজনও হতে পারে।

মিনি-মেন্টাল স্টেট এক্সামিনেশন (এমএমএসই) হল বৌদ্ধিক কার্যকারিতা মূল্যায়নের জন্য সবচেয়ে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত পরীক্ষা।

 

4 thoughts on “ডিমেনশিয়া”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top